Published On: Thu, Nov 24th, 2016

জাকির ও তাঁর সংগঠনের অ্যাকাউন্ট বন্ধে নির্দেশ এনআইএ’র

বিতর্কিত ধর্মপ্রচারক জাকির নায়েকের সংস্থা ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন (আইআরএফ) সন্ত্রাস দমন আইনে নিষিদ্ধ ঘোষিত হয়েছে আগেই। এবার জাকির ও তাঁর ওই প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করে দিতে ব্যাংকগুলিকে নির্দেশ দিল ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ)।  সরকারি সূত্রের বক্তব্য, জাকিরের অর্থের উত্সমুখ বন্ধ করে দিতে যেসব ব্যাংকে জাকির ও তাঁর সংস্থার অ্যাকাউন্ট আছে, তাদের পরবর্তী নির্দেশ জারি হওয়া পর্যন্ত সেগুলি বাজেয়াপ্ত করতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, জাকির, আইআরএফ ও তার বেশ কয়েকজন নাম প্রকাশ না হওয়া কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৩৫-এ (ধর্মের ভিত্তিতে বিভিন্ন গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানো, সম্প্রীতি রক্ষার পরিপন্থী কাজকর্ম করা) ধারায় মামলা রুজু করেছে এনআইএ। পাশাপাশি সন্ত্রাস দমন আইন ইউএপিএ-র নানা ধারার আওতায়ও মামলা রুজু হয়। তারপরই ১৯ নভেম্বর থেকে তিনদিন ধরে মুম্বাইয়ের ২০টি জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে জাকির ও আইআরএফের আর্থিক কার্যকলাপ সংক্রান্ত একাধিক তথ্য উদ্ধার হয়।

সূত্রের খবর, ২০১৫ সালের অক্টোবরে আইসিস-এর রিক্রুট আবু আনাসকে জাকিরের আইআরএফ থেকে ৮০ হাজার টাকা স্কলারশিপ দেয়া হয়েছিল বলে এনআইএ দাবি করে। তারপরই জাকির ও তাঁর ওই সংস্থার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্লক করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। আইআরএফের তহবিল ও অর্থ বন্টনের নেটওয়ার্ক খতিয়ে এই তথ্য পায় এনআইএ।

সাধারণতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে নাশকতার ছক কষার অভিযোগে গত জানুয়ারিতে আনাস ধরা পড়ে এনআইএ’র হাতে। তখন হায়দরাবাদের একটি কোম্পানির চাকরি ছেড়েছে রাজস্থানের টঙ্কের বাসিন্দা এই ইঞ্জিনিয়ার।

এদিকে আইআরএফের ওয়েবসাইট নিষিদ্ধ করার জন্যও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে লিখিত প্রস্তাব দিয়েছে এনআইএ। সোস্যাল নেটওয়ার্ক সাইটগুলিতে জাকিরের ভাষণের  ভিডিও তুলে দেয়া সহ অনলাইনে আইআরএফের যাবতীয় কার্যকলাপ বন্ধ করে দিতেও বলেছে শীর্ষ তদন্ত সংস্থাটি।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ওই ওয়েব সাইটের ইউআরএলটি ব্লক করে দিতে এনআইএ’র প্রস্তাবটি কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের কাছে পাঠিয়ে দেবে।

Must Like and Share 🙂

About the Author

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>