Published On: Wed, Jan 11th, 2017

৬.৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হবে চলতি অর্থবছরে : বিশ্বব্যাংক

অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে বাংলাদেশ চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরে মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ৮ শতাংশ অর্জন করতে পারবে বলে প্রক্ষেপন করেছে বিশ্বব্যাংক।
চলতি অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সূচকের গতি-প্রকৃতির হিসাব বিবেচনায় নিয়ে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সম্ভাবনা,২০১৭ ‘গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টস’ প্রতিবেদনে এই প্রক্ষেপন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে আন্তর্জাতিক ঋণ প্রদানকারী সংস্থাটি ওয়াশিংটনে তার প্রধান কার্যালয়ে ‘গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টস’ প্রতিবেদনটি প্রকাশ করে। বিশ্ব অর্থনীতির গতি-প্রকৃতির ওপর ভিত্তি করে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।
বিগত ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাংলাদেশ ৭ দশমিক ১১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করে। সেবার অবশ্য বিশ্বব্যাংক জানিয়েছিল, বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ৫ ভাগের বেশি হবে না। কিন্তু চূড়ান্ত হিসেবে বাংলাদেশ ৭ দশমিক ১১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে সক্ষম হয়।
উল্লেখ্য, চলতি অর্থবছরের বাজেটে জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ২ শতাংশ ধরা হয়েছে।
বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদেন বলা হয়, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা এবং বহিঃচাহিদা হ্রাস পাওয়ার পরও বাংলাদেশ এ বছর ৬ দশমিক ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে পারবে। এছাড়া প্রবাসী আয় কমে যাওয়ায় ব্যক্তি পর্যায়ে ভোগ এবং বিনিয়োগ কমে আসতে পারে।
বিশ্ব অর্থনীতির গতি-প্রকৃতি নিয়ে প্রস্তুতকৃত আন্তর্জাতিক এই ঋণ প্রদানকারী সংস্থার ‘গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টস’ অনুসারে দক্ষিণ এশিয়ায় প্রবৃদ্ধি অর্জনে এগিয়ে ভারত। বিশ্বব্যাংক বলছে ভারত এবার ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে। অন্যদিকে পাকিস্তান ৫ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।
এ বছর দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক প্রবৃদ্ধি বেড়ে ৭ দশমিক ১ শতাংশ হবে। আঞ্চলিক প্রবৃদ্ধি বাড়াতে ভূমিকা রাখবে ভারত।
বিশ্বব্যাপী মন্থর বিনিয়োগের মধ্যেও এ বছর বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি ২ দশমিক ৭ শতাংশ হবে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে প্রতিবেদনটিতে।

About the Author

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>